fbpx

ওয়াইফাই রাউটার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে স্মার্টফোন!

পথে চলতে চলতে মোবাইল ডাটা শেষ হয়ে গেলে কিংবা এমন কোথাও গেলে যেখানে ওয়াইফাই সুবিধা নেই আর সমস্যায় পড়ার কিছু নেই। আশেপাশের কোনো বন্ধু, পরিচিত কিংবা কাউ’কে বলে তার মোবাই’লে হটস্পট অন করে সেটিকে ওয়া’ইফাই রাউটার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে।

মুঠোফোনের থ্রি-জি বা ফোর-জি ডেটা প্যাক ওয়াই’ফাই সংযোগ হিসেবে শেয়ার করা যায় অ’ন্যান্য ডিভাইসে। অনেক ফো’নেই অবশ্য ওয়াইফাইয়ে’র পাশাপাশি ব্লুটুথ বা ইউএসবির মাধ্য’মেও ইন্টারনেট ডেটা শেয়ার করা যায়।

পর্দার ওপরের দিক থেকে সো’য়াইপ করে নামালে শর্টকাট মেনু দেখা’বে। সেখান থেকে হটস্পটে ট্যাপ করুন। আর হটস্পট না পেলে পেনসিল আইকন অর্থাৎ এডিট অ’পশনে ট্যাপ করে কুইক সেটিং’সে হটস্পট আনতে পারবেন।
মুঠোফোনের ইন্টারনেট ডেটা প্যাক শে’য়ার করার সু’যোগ আছে অ্যান্ড্রয়েডে। সে ক্ষেত্রে স্মার্টফোনটিকে ওয়াইফাই হটস্পট বানানো হয়। আর অন্যান্য ডিভাইস যেমন মুঠোফোন, ট্যাব বা’ কম্পিউটার সেই হটস্পটের মাধ্যমে ইন্টারনেটে যুক্ত হতে পারে।

প্রথমবার ব্যবহারের আগে হটস্পট সেট’আপ ক’রে নিন। যথারীতি ওপর থেকে সোয়াইপ করে নি’চে নামিয়ে হটস্পট আইকন কিছুক্ষণ হোল্ড করে থাকুন। এতে হট’স্পট মেনু দেখাবে। মোর সে’টিংস অপশ’নে ট্যাপ ক’রে সেটআপ ওয়াই’ফাই হটস্পট নির্বাচন করুন। এবার নেটওয়ার্কের নাম দিন।

সিকিউরিটিতে নান অপশনটি নির্বাচন করে দিলে হট’স্পটে যুক্ত হতে কোনো পাসওয়ার্ড লাগবে না। আর ডব্লিউপিএ২ পিএসকে নির্বাচন করলে হটস্পটে যুক্ত হওয়ার সময় পাসওয়ার্ড চাইবে। নিচের অংশে সেই পাসও’য়ার্ড দিতে হবে। নিরাপত্তার জন্য সব সময় পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে বলা হয়। কিছু ক্ষে’ত্রে ব্যান্ড নির্বাচন করতে হ’তে পারে। বহুল ব্যবহৃত ২.৪ গিগা’হার্টজ ব্যান্ড নির্বাচন করে দিতে পারেন। এরপর সেভ ক’রুন।

এবার ওয়াইফা’ইয়ে যেভাবে যুক্ত হয়, ঠিক সেভাবেই যুক্ত করতে হবে। যে ডিভাইস থেকে যু’ক্ত হতে চান, সেটির ওয়াইফাই চালু করুন। এরপর হটস্পটের নাম নির্বা’চন করুন, পাসওয়ার্ড দিন এবং কা’নেক্ট করুন।

ফেসবুকে লাইক দিন