fbpx

ইসলামোফোবিয়ার বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্বকে এক হওয়ার আহ্বান ইমরানের

ইউরোপীয় দেশগুলোর ক্রমবর্ধমান ইসলামোফোবিক কর্ম ও বিবৃতিতে সৃষ্ট ‘‌‌‌ঘৃণা ও চরমপন্থার’ চক্রকে ভেঙে ফেলার ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দেয়ার আহ্বান জানিয়ে মুসলিম রাষ্ট্রগুলোর নেতাদের প্রতি চিঠি লিখেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ফ্রান্সের সরকারি ভবনে পবিত্র মহানবী মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রদর্শনের কয়েক দিন পর বুধবার (২৮ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রীর অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে ‘মুসলিম রাষ্ট্রের নেতাদের’ উদ্দেশে সম্বোধন করা এ চিঠিটি পোস্ট করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান এদিন টুইটারে পোস্ট করা চিঠিতে ‘মুসলিম উম্মাহর মধ্যে ক্রমবর্ধমান উদ্বেগ এবং অস্থিরতার বিষয়টি তুলে ধরেছেন। চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘কোরআন অবমাননার ঘটনাগুলো ক্রমবর্ধমান ইসলামোফোবিয়ার প্রতিচ্ছবি যা ইউরোপীয় দেশগুলোতে বিশাল মুসলিম জনগোষ্ঠীতে ছড়িয়ে পড়ছে’।

ইমরান খান বলেন, ‘মুসলিমবিরোধী অনুভূতি পুরো ইউরোপজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে মসজিদ বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে এবং জনগণ ও ধর্মযাজকরা তাদের ধর্মীয় পোশাক প্রদর্শন করা সত্ত্বেও জনসমক্ষে মুসলিম মহিলাদের তাদের পছন্দের পোশাক পরার অধিকারকে অস্বীকার করা হচ্ছে।’

ইমরান খান বিশ্বাস প্রকাশ করে বলেন যে, ইউরোপীয় দেশগুলোর নেতৃত্ব মুসলিম জনগণ, পবিত্র কোরআন ও মহানবীর (সা.) প্রতি যে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা পোষণ করে সে সম্পর্কে ‘বোঝার অভাবের কারণেই প্রায়শই কাজ করে’।

ইমরান খান লিখেছেন, ‌সম্মিলিতভাবে, আমি আমাদের সব মুসলিম নেতাদের প্রতি আহ্বান জানাই, আসুন ঐশী গ্রন্থ আল-কোরআন এবং আমাদের নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর প্রতি আমাদের যে গভীর অনুরাগ ও ভালোবাসা রয়েছে তা অমুসলিমদের, বিশেষত পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলোর নেতৃত্বের কাছে অবহিত করি। ‘অন্যের’ কাছে পৌঁছানোর এবং অজ্ঞতা ও বিদ্বেষের প্রজন্ম থেকে সহিংসতা নির্মূলের চক্র শেষ করার এখন সময় এসেছে।

ফেসবুকে লাইক দিন